রেসিপিঃ বউ খুদ / খুদের ভাত / বউয়া

গাপুস করে খাবেঃ ২ জন

বানাতে সময়ঃ ২ ঘন্টা

খেতে সময় লাগবেঃ ১০ মিনিট

উপকরণ

  • ২ কাপ খুদের চাল / ভাঙ্গা আতপ চাল/ ভাঙ্গা পোলাওর চাল (৪০০ গ্রাম)
  • ১/২ কাপ পেঁয়াজ কুচি
  • ১ টেবিল চামচ আদা কুচি
  • ২ চাচামচ রসুন কুচি
  • ৩-৪ টি শুকনা মরিচ
  • ১/৩ কাপ সরিষার তেল / সয়াবিন তেল
  • ৩ কাপ গরম পানি
  • লবন স্বাদ মত

প্রণালি

  • খুদের চাল ভালো মানে চরম ভালো করে ধুয়ে নিয়ে পানি ঝরিয়ে রাখুন। আপনার কাছে ভাঙ্গা চাল নেই? কোন সমস্যা নেই। না থাকলে পোলাওর চাল (কালি জিরা / চিনিগুড়া / বাসমতী চাল ) ১ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে হাত দিয়ে কচলে ভেঙ্গে নিন। কচলানোর সময় খেয়াল রাখবেন, লেবু বেশী কচলালে তিতা হয় আর চাল বেশী কচলালে গুড়া গুরা হয়।
  • হাড়িতে তেল গরম করে তাতে পেঁয়াজ কুচি, আদা, রসুন ও শুকনা মরিচ টুকরা ২ মিনিট ভেঁজে চাল ও লবন দিয়ে দিন। উসসস করে একটা শব্দ হবে।
  • ২ মিনিট চাল ভেঁজে ৩ কাপ পানি দিয়ে ঢাকনা দিয়ে ঢেকে দিন। ৭-৮ মিনিট পরে একবার নেড়ে দিন।
  • শেষের দিকে চুলার আচ একেবারে কমিয়ে দিয়ে বা গরম পানির ভাপে দমে রেখে চাল ঝরঝরে হলে নামিয়ে নিন মজাদার বউ খুদি / খুদের ভাত / বউয়া।
  • এরপর দুই এক পদের ভর্তা দিয়ে মাখিয়ে গোল গোল লোকমা ওকাৎ করে গিলে ফেলুন মজাদার সুস্বাদু বউ খুদ। ওয়েল, আপনি চাইলে চিবিয়ে খেতে পারেন।

রেসিপি ডিসমিস

রেসিপিঃ পিজ্জা – এখন ঘরে বসেই ইটালির স্বাদ!

let your neighbor cook for you

Set Menu- Vhuna khichuri + Egg vuna + Begun bhaja + Salad

chinigura rice, mug dal,…
2
Santinagar
Share love

রেসিপিঃ পিজ্জা – এখন ঘরে বসেই ইটালির স্বাদ!

গাপুস করে খাবেঃ ১-৪ জন

বানাতে সময়ঃ সাড়ে ৩ ঘন্টা

খেতে সময় লাগবেঃ ৫-১০ মিনিট

উপকরণ

(কিমা রান্নার জন্য) টপিং

১। কিমা ২ কাপ

২। মরিচ কুঁচি ৬/৭ টি (ঝাল অনুযায়ী)

৩। পিয়াজ কুঁচি ২ কাপ

৪। টমেটো সস ২ কাপ

৫। আদা বাটা আধা চামচ

৬। রসুন বাটা আধা চামচ

৭। গুঁড়া দুধ ১ চামচ

৮। মরিচ গুঁড়া আধা চামচ

৯। তেল এবং লবণ পরিমাণ মত

১০। মজারেলা চিজ

১১। টমেটো এবং ক্যাপসিকাম ১ কাপ

১২। ক্রিম চিজ অথবা মেয়নেস পরিমাণ মত

১৩। ডিম অর্ধেক

১৪। গোলমরিচ গুঁড়া ১ চামচ

১৫। শুকনা মরিচ স্বাদ মত

১৬। মাখন পরিমাণ মত

১৭। গরম মসলা গুঁড়া আধা চামচ

১৮। সয়াসস ২ চামচ

পিজ্জার দো এর জন্যঃ

১। ময়দা ২ কাপ

২। ইস্ট ২ চামচ

৩। ডিম একটি

৪। তেল পরিমাণ মত

৫। লবণ পরিমাণ মত

৬। গরম পানি পরিমাণ মত

৭। গুঁড়া দুধ ২ চামচ

৮। চিনি আধা চামচ

প্রণালি

প্রথমে একটি বড় বাটিতে ময়দা, ইস্ট, ডিম, গুঁড়া দুধ, চিনি মিশিয়ে তাতে আস্তে আস্তে গরম পানি ঢেলে ময়ান করুন ভালো ভাবে। ময়ানে এবার তেল দিন অল্প একটু, দো টা কে নরম করার জন্য। ইস্ট এর কারণে ময়ান করতে করতে পিজ্জার দো ফুলে উঠবে। এবার পিজ্জা দো টা কে চুলার পাশে ভেজা ঘামছা দিয়ে ঢেকে রাখুন ৩ ঘণ্টা।

এবার আসা যাক পিজ্জার কিমা রান্না করার প্রস্তুত প্রণালীতে। ফার্মের মুরগী সুন্দর করে হাড় ছাড়া ছোট ছোট পিস এ কেটে সেটাকে ব্লেন্ডারে দিয়ে ব্লেন্ড করলেই সুন্দর কিমা হয়ে যাবে। তারপর চুলায় তেল গরম করে পেঁয়াজ একটু ভেজে তাতে মরিচ গুঁড়া, গরম মসলা গুঁড়া , আদা বাটা, রসুন বাটা, গোল মরিচ গুঁড়া, সয়াসস লবণ দিয়ে কষান। কষানো শেষ হলে কাঁচা মরিচ ছেড়ে দিন। সামান্য পানি দেন সেদ্ধ হওয়ার জন্য। মাংস সেদ্ধ হয়ে গেলে তার মধ্যে প্রথমে গুঁড়া দুধ দিবেন। তারপর টমেটো সস ঢেলে দিবেন ১ কাপের মত। একটু নাড়াচাড়া দিয়ে নামিয়ে ফেলুন। কিমা রান্না প্রস্তুত।

পিজ্জার দো ৩ ঘণ্টা পর অনেক খানি ফুলে যাবে। হাত দিয়ে দো এর ভিতরে বাতাস বার করে ফেলতে হবে। এখন একটি স্টিল এর থালায় প্রথমে তেল ছড়িয়ে দিতে হবে, তার উপর দো টা কে পিজ্জার আকারে বেলুন দিয়ে সেট করতে হবে। পিজ্জার চারপাশে আঙ্গুল দিয়ে সুন্দর করে শেপ করে দিতে হবে, যাতে করে সুন্দর লাগে। পিজ্জার দো সেট হয়ে গেলো দো এর উপর ডিম ফেটানো ছড়িয়ে দিতে হবে। এর উপর রান্না করা কিমা ঢেলে দেন, তার উপর এক স্তর সস ঢেলে দেন। আবার তার উপর ক্যাপসিকাম এবং টমেটো সাজিয়ে দিন। আবার এক স্তর মেয়নেস এবং সস মাখিয়ে দিন। সব শেষে মজারেলা চিজ কুচি কুচি করে কেটে পুরো পিজ্জা তে ছড়িয়ে দিন। সব শেষে মরিচের ফালি ছিটিয়ে দিন, যে যেমন ঝাল পছন্দ করে। ডেকোরেশন শেষ হলে ইলেক্ট্রিক ওভেনে এ ১৮০* সি তে ১৫ মিনিট রাখুন ( পিজ্জা ওভেনে দেয়ার আগে ওভেন ৫ মিনিট গরম করে নিবেন)।

১৫ মিনিট হয়ে গেলে নামিয়ে ফেলুন সুস্বাদু পিজ্জা।

বিঃদ্রঃ পিজ্জা ওভেনে দেয়ার পর ১০ মিনিট পর একবার চেক করুন। ১৫ মিনিট পর না হলে আরও ৫ মিনিট রাখুন)

পিজ্জার উপকরণ সব দোকানেই পাওয়া যায়। একবার কিনে ফেলুন, একই জিনিস দিয়ে ৮/১০ বার পিজ্জা বানাতে পারবেন। মজারেলা চিজ এর দাম ১২০-৩০০ টাকা (বাজারে আছে প্রান, আড়ং এর ), মেয়নেস ও ক্রিম চিজ এর দাম ১৫০-৩০০ ( ক্রাফট)। আর বাকি সব উপকরণ মোটামুটি আমাদের ঘরেই থাকে।

রেসিপি ডিসমিস

দম বিরিয়ানির রেসিপি

let your neighbor cook for you

পিজ্জা খেতে চান?

আমাদের পিজ্জা ক্যাটাগরি

ফুডপিয়নের তালিকাভুক্ত কয়েকটি কিচেন দিচ্ছে বাসায় তৈরী স্বাস্থ্যকর ও সুস্বাদু পিজ্জা। তালিকা দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

ডেজার্ট আছে আপনাদের?

ডেজার্টের সুগন্ধে মাতোয়ারা

ফুডপিয়নের তালিকাভুক্ত অনেক কিচেন দিচ্ছে বাসায় তৈরী স্বাস্থ্যকর ও সুস্বাদু ডেজার্ট আইটেম। তালিকা দেখতে নিচের লিংকে ক্লিক করুন।

Share love

রেসিপিঃ শাহী টুকরা – মাত্র ২২ মিনিটে বানিয়ে বুনিয়ে খেয়ে ফেলে ঢেকুর তুলুন

গাপুস করে খাবেঃ ১-৪ জন

বানাতে সময় লাগবেঃ ২০ মিনিট

খেতে সময় লাগবেঃ ২ মিনিট

উপকরণঃ

• পাউরুটিঃ ৪ পিস

• দুধঃ ১ লিটার

• এলাচগুড়োঃ ১/২চা চামচ

• বাদাম কুচিঃ ১/৪ কাপ

• কর্নফ্লাওয়ারঃ ১চাচামচ

• গুড়ো দুধঃ ১/৪কাপ

• চিনিঃ পরিমান মত (৩/৪কাপ)

• গোলাপজলঃ ১চা চামচ

• তেল বা ঘি ভাজার জন্য

let your neighbor cook for you

প্রণালীঃ

দুধ জাল দিয়ে ১/২ লিটার করে নিন।

কর্নফ্লাওয়ার ও ১/২কাপ ঠান্ডা দুধ ভাল করে মিশিয়ে দুধে ঢালুন।

গুড়ো দুধ, এলাচগুড়ো ও বাদাম কুচি দিয়ে মিশিয়ে বলক আসতে দিন।

অনবরত নাড়ুন।

চুলা বন্ধ করে গোলাপজল দিয়ে নামিয়ে নিন।

পাউরুটির বাদামি পাশ কেটে নিন।

এখন প্রতিটি পিস কে ৪ ভাগ করুন।  ১৬ পিস হবে।

এখন প্যানে ১/৪ কাপ এর মত তেল দিয়ে গরম হলে পাউরুটির ছোট পিসগুলো দিয়ে অল্প আঁচে ভাজুন।

আঁচ বাড়ালে পুড়ে যাবে।

ভাজা রুটির পিসগুলো প্লেটে সাজিয়ে উপরে ঘন দুধের মিশ্রন ঢেলে দিন।

কিছমিছ ও বাদাম ছিটিয়ে পরিবেশন করুন।

রেসিপি ডিসমিস

তেজপাতার গুণাগুণ

order homemade food online
Share love

রেসিপিঃ গরুর দম বিরিয়ানি – কাচ্চি স্টাইল

উপকরণঃ

  • গরুর মাংস (২ কেজি) ( বড় টুকরা করা),
  • লবণ (পরিমানমতো),
  • তেল (১/২ কাপ),
  • ঘি (১/৪ কাপ),
  • মালাই (১/২ কাপ),
  • আদাবাটা (১/৪ কাপ),
  • রসুনবাটা (১ /৪ কাপ),
  • টক দই (১/২ কাপ),
  • জর্দার রঙ বা জাফরান (অল্প),
  • দারচিনি ও এলাচ গুঁড়া (১/২ চা–চামচ করে),
  • লবঙ্গ (কয়েকটা),
  • জায়ফল জয়িত্রি গুঁড়া (১/২ চা-চামচ),
  • শাহি জিরা (১/৪ চা–চামচ),
  • আস্ত দারচিনি ও লবঙ্গ কয়েকটা,
  • কাবাব চিনি (১ /২ চা–চামচ),
  • সাদা গোলমরিচের গুঁড়া (দেড় চামচ),
  • কাঁচামরিচ বাটা (১ টেবিল চামচ),
  • পেস্তা বাদাম বাটা (১/৪ কাপ),
  • তেজপাতা (৫/৬ টা),
  • গোল আলু ১০টা আস্ত ( ছোট),
  • পেঁয়াজ বেরেস্তা (পরিমাণমতো),
  • আলুবোখারা (৭-৮ টা),
  • কিশমিশ (১০-১২ টা),
  • কাঁচামরিচ (৭-৮ টা),
  • কালিজিরা চাল (১ কেজি)।
let your neighbor cook for you

প্রণালিঃ

মাংস ধুয়ে নিন। এবার দইয়ের মধ্যে দারচিনি ও এলাচ গুঁড়া, জর্দার রং মিশিয়ে দইটা মাংসে মেশান। এরপর জয়ত্রি, সাদা গোলমরিচ, আদা-রসুন বাটাসহ বাকি সব মশলা ও তেল মাংসে মেশান। চালটা আলাদা আধা সেদ্ধ করে নিন। পেঁয়াজ বেরেস্তা করে নিন। আলু গুলো ভেজে নিন। এবার মশলা মাখানো মাংস রান্নার হাঁড়িতে ঢেলে সাজিয়ে নিন। তার ওপর ভাজা আলু ও পেঁয়াজ বেরেস্তা ছড়িয়ে দিন। এবার মাংসের ওপরে আধা সেদ্ধ চাল সমান করে বিছিয়ে নিন। উপরে ঘি ও মালাই ছড়িয়ে দিন। কিশমিশ, আলুবোখারা ও কাঁচামরিচ বিছিয়ে দিন। এবার হাঁড়ির মুখে ঢাকনা দিয়ে চারপাশ আটা দিয়ে বন্ধ করে দিন। এবার চুলায় একটি পাতলা তাওয়া বসিয়ে তার উপর হাঁড়িটি বসিয়ে অল্প আচে চুলা ধরিয়ে দিন। দেড় ঘণ্টার মধ্যে তৈরি হয়ে যাবে গরুর কাচ্চি বিরিয়ানি।

#টিপসঃ মাংস রান্না করার আগে লবণ–পানিতে ভিজিয়ে রাখুন কয়েক ঘণ্টা। মাংস লবণে থাকার কারণে নরম হয়ে যাবে এবং সহজে সেদ্ধ হবে। ধুয়ে রান্না করুন।

Share love

রেসিপিঃ চুলায় তৈরী প্লেইন চকলেট কেক

উপকরন:

ডিম- ৪ টা ( নরমাল তাপমাত্রার)

ময়দা-১ কাপ

কোকো পাউডার-৩-৪ টেবিল চামচ ( বেশী দিলে একটু তিতা লাগে)

গুড়া দুধ-২ টেবিল চামচ

গুড়া চিনি-আধা কাপ বা ১ কাপ পর্যন্ত নিতে পারো ( ব্লেন্ডারে দুই ব্লেডে বা পাটায় গুড়া করে নিতে পারো)

বাটার/ তেল-১ কাপ ( বাটার বা তেল অর্ধেক অর্ধেক করেও দেয়া যায়)

ঘন দুধ-১ কাপের ৪ ভাগের ৩ ভাগ ( গুড়া দুধ ঘন করে গুলে নিলেও হবে)

ভেনিলা/ স্ট্রবেরী এসেন্স-১ চা চামচ

বেকিং পাউডার- দেড় চা চামচ


প্রস্তুত প্রণালী

১…ময়দা , গুড়া দুধ, কোকোপাউডার এবং বেকিং পাউডার একসাথে নিয়ে চালনিতে চেলে নিতে হবে। ডিমের সাদা ও কুসুম ভেঙ্গে আলাদা করতে হবে সাবধানে যাতে কুসুমের অংশ সাদার সাথে না মিলে যায়।এবার ইলেক্ট্রিক বিটার দিয়ে ডিমের সাদাটাকে এমন ভাবে ফেনা করবে যেনো পাত্র উল্টালেও ফোম পড়ে না যায়। হ্যন্ড বিটারেও করা যায় তবে অনেক পরিশ্রম হবে। গুড়া চিনি ও তেল বা বাটার আলাদা একটি পাত্রে বিট করে রাখতে হবে।

food home delivery

২…ডিমের সাদার ফোমের মধ্যে কুসুম দিয়ে ভালো করে বিট করবে, যত ভালো বিট করবে কেক ততই সফট হবে। এবার চিনি আর তেলের মিক্সটা ফোমের ভিতর অল্প অল্প করে দিবে আর বিট করবে, সব দেয়া হলে ঘন দুধটা এবং এসেন্স দিয়ে বিট করে মিশিয়ে নিবে, এবার ময়দার মিক্সটা ৪-৫ ভাগে ভাগ করে ১ টা করে ভাগ ডিমের ফোমের মিক্সটাতে ছড়িয়ে দিয়ে একটা চ্যপ্টা চামচ দিয়ে সাবধানে হাল্কা করে মিশাবে, কখনোই জোড়ে বা তাড়াতাড়ি মিশাবে না তাহলে ভেতরের বাতাস বের হয়ে যাবে ও কেক সফট হবে না, এটা হাতের সাহায্যেও করতে পারো, কোকো পাউডার টা দলা দলা থাকে সেটা আঙ্গুল দিয়ে ডলা দিয়ে দিয়ে মিক্স করবে, এভাবে ময়দার ভাগ গুলো ৫ বারে দিয়ে মিশিয়ে নিবে।

৩…মেশানো হয়ে গেলে যে পাত্রে( পাত্রটা এমন নিবে যাতে কেকের মিক্স দেয়ার পরও অর্ধেক খালি থাকে) কেক বসাবে সেটাকে আগেই মুছে রেখে পাত্রের তলার সমান করে কাগজ কেটে নিয়ে তলায় বসাবে ও তার উপর তেল ব্রাশ করবে এবং পাত্রের ভেতরের সবদিকে তেল মেখে রাখবে, আর চুলাতে একটা বড় পাতিলে ২ কাপের মত বালি দিয়ে তাতে একটা পাতিলের স্ট্যন্ড বসাবে ও পাতিলটা ঢেকে চুলাতে মাঝারি আঁচ দিয়ে ৫ মিনিট গরম করবে কেক বসানোর আগে। এবার কেকের পাত্রে কেকের মিক্সটা ঢেলে গরম করা পাতিলের ভিতরে স্ট্যন্ডে কেকের মিক্স বসিয়ে দিবে ও বড় পাতিলটা ঢেকে কোনো ভারী কিছু দিয়ে চাপ দিয়ে রাখবে, চুলার জ্বাল একদম কমের থেকে সামান্য বেশী রাখবে ও ২৫-৩০ মিনিট বেক করবে।

food home delivery

৪….২৫-৩০ মিনিট পর একটা লম্বা কাঠি কেকের মাঝ বরাবর তলা পর্যন্ত গেথে দিয়ে সংগে সংগে বের করবে, যদি পরিস্কার ভাবে বের হয়ে আসে তাহলে কেক নামাবে তা না হলে আরো সময় রাখবে যতক্ষন ভেতরটা হয়ে না যায়। বের করে একটু ঠান্ডা হলে কেকের চারপাশে ছুড়ি দিয়ে পাত্রে থেকে ছাড়িয়ে নিয়ে অন্য পাত্রে উল্টা করে ঢেলে নিবে ও কেটে কেটে খাবে।

 


টিপ্সঃ চুলার জ্বালটা একেক চুলায় একেক রকম তাই এটা খেয়াল রাখবেন জ্বালটা যেনো কম হয়। বেশী হলে বাইরে হবে ভেতরে কাঁচা কাঁচা থাকবে।

আরো টিপ্সঃ বানাতে খুব বেশী ঝামেলা মনে হলে ফুডপিয়ন থেকে অর্ডার করে ফেলুন ঝটপট। আপনি অর্ডার করার পর আপনার জন্যই বানিয়ে ডেলিভারি করা হবে।

Share love